গঙ্গা ও ব্রক্ষ্মপুত্র নদীর পানির হিস্যা নিশ্চিতে পাঁচ দেশীয় নদী ব্যবস্থাপনার প্রস্তাব দিয়েছে আন্তর্জাতিক ফারাক্কা কমিটি নিউ ইয়র্ক শাখা। এজন্য প্রধানমন্ত্রীকে কার্যকর উদ্যোগ নেয়ার আহ্বান জানিয়েছে সংগঠনটি। শনিবার নিউ ইয়র্কেও জ্যাকসন হাইটসে আনুষ্ঠানিক প্রেসব্রিফিংয়ে বক্তারা এসব একথা বলেন। অতিসম্প্রতি ভারতের সাথে যৌথ উদ্যোগে বাংলাদেশের ভেতরে গঙ্গা বাঁধ নির্মান করার যে প্রস্তাব বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিন দিয়েছেন তাকে ইতিবাচক প্রস্তাব হিসেবে মনে কওে কমিটি। আন্তর্জাতিক ফারাক্কা কমিটি নিউ ইয়র্ক শাখার সভাপতি আতিকুর রহমান সালু প্রেস ব্রিফিংয়ে লিখিত বক্তব্য পওে শুনান। পওে আন্তর্জাতিক ফারাক্কা কমিটির বিভিন্ন কার্যক্রম নিয়ে সাংবাদিকদেও সাথে মতবিনিময় করেন কমিটির নেতারা। এতে উপস্থিত ছিলেন ফারাক্কা কমিটির নিউ ইয়র্ক শাখার মহাসচিব সৈয়দ টিপু সুলতান, সিনিয়র সহ-সভাপতি আওলাদ হোসেন খান, সহ-সভপতি আবু তালেব চান্দু, সাংগঠনিক সম্পাদক আতাউর রহমান আতা, কমিটির সদস্য এম সিদ্দিক পল্লব ও মনিরুল ইসলাম।

এসময় আতাউর রহমান সালু বলেন, বাংলাদেশের উজানে গঙ্গা নদীতে বাঁধ দিলে যেমন বাংলাদেশে প্রভাব পড়ে। ঠিক তেমনি ব্রক্ষ্মপুত্র নদীতে চীন বাঁধ নির্মান করলে তাতে উভয় দেশই ক্ষতিগ্রস্ত হবে। চীনের সাথে বুঝাপড়া করতে বাংলাদেশের প্রয়োজন হবে ভারতের। সে জন্য দরকষাকষির অংশ হিসেবে এসুযোগকে বাংলাদেশকে কাজে লাগাতে হবে।
এছাড়ও লিখিত বক্তব্যে সংগঠনটি নদীর ন্যায্য পানির হিস্যা নিশ্চিতে একটি সমন্বিত প্রস্তাব তুলে ধরেন। এতে তারা বলেন, সার্কের চেতনায় আঞ্চলিক সহযোগীতারা ভিত্তিতে বেসিন বা অববাহিকা-ভিত্তিক সমন্বিত পানি ব্যবস্থাপনার জন্য দরকার অববাহিকার সকল দেশের অংশগ্রহন এবং সহযোগিতা। কাজেই গঙ্গা ও ব্রহ্মপূত্রের সমন্বিত ব্যবস্থাপনার জন্য দরকার অববাহিকার সকল দেশ তথা বাংলাদেশ, ভারত, ভূটান, নেপাল এবং গনচীনের মধ্যে যৌথ পানি ব্যবস্থাপনা। একমাত্র অংশিদারিত্ব এবং সহযোগিতার মাধ্যমেই তা করা সম্ভব। ভাটির সর্বনিম্নে অবস্থিত বাংলাদেশকেই এব্যাপারে উদ্যোগি হতে হবে।
এবক্তব্যের যুক্ত হিসেবে ইউরোপে পানির সমস্যা সমাধানে ১১ টি দেশের যৌথ উদ্যোগের কথা তুলে ধরেন। ফারাক্কা কমিটির নেতারা বলেন, রাইন নদীর সমস্যার সমাধানে ইউরোপের ১১টি দেশকে নিয়ে গঠিত দানিয়ুব কমিশন আঞ্চলিক সহযোগীতার অনন্য নিদর্শন। এছাড়াও লাওস, কম্বোডিয়া, থাইল্যান্ড ও ভিয়েতমান এই চার দেশকে নিয়ে মেকং নদীর সমস্যার সমাধানে গঠিত মেকং রিভার কমিশনের বিষয়টি মডেল হিসেবে নেবার প্রস্তাব দিয়েছেন সংগঠনটির নেতারা।

আন্তর্জাতিক ফারাক্কা কমিটি মনে কওে , উজানে পানি প্রত্যাহারের ফলে গঙ্গার বাংলাদেশ অংশ মরতে বসেছে। বিগত কয়েক বছর ধরে একই অবস্থা তিস্তা নদীর। বাংলাদেশের উপর দিয়ে প্রবাহিত ৫২ টি অভিন্ন নদীর প্রত্যেকটির উজানে বাঁধ প্রবাহগুলোকে মরনাপন্ন করে তুলেছে। ব্রহহ্মপূত্রের উজানে বাঁধ নির্মানের বিরূপ প্রতিক্রিয়ার ব্যাপারে ভারত সোচ্চার হওয়ার ভাটির সর্বনম্নে অবস্থিত বাংলাদেশের কয়েক দশকের কষ্টের কথা স্বীকৃত হয়েছে। তাই এবিষয়ে এখনই প্রধানমন্ত্রীকে কার্যকর উদ্যোগ নেয়ার দাবী জানায় আন্তর্জাতিক ফারাক্কা কমিটি।